মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ১০:১৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
অপ্রয়োজনে ঘরের বাইরে পেলেই গ্রেপ্তার সহ কঠোর ব্যবস্থা : বিএমপি কমিশনার বরিশালে সন্ধ্যার পরে ঔষধের দোকান ব্যতিত সকল দোকান বন্ধের নির্দেশ করোনাঃ মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে কমিউনিটি ক্লিনিক কর্মীরা শেবাচিমে অন্তঃবিভাগ চিকিৎসক পরিষদের খাদ্যসামগ্রী ও নগদ টাকা বিতরণ অব্যাহত গভীররাতে অসহায় পরিবারের দুয়ারে ত্রাণ নিয়ে উজিরপুরের ওসি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে ঝালকাঠি জেলা পুলিশ গৌরনদীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ত্রান বিতরণ অনুষ্ঠানে -এ্যাড. বলরাম পোদ্দার অসহয়, গরীব, হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়নো আমাদের একান্ত কাম্য ঝালকাঠিতে করোনা উপসর্গ থাকা ২ জনকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি ভোলায় বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণ মাদারীপুরে নারী পুলিশকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা ধামরাইয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান এর উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সামাজিক দূরত্ব না মেনে খোশগল্পঃ বরিশাল জেলা প্রশাসন কর্তৃক ৫০০০টাকা জরিমানা। বিসিসির ত্রান তহবিল গঠন: মেয়র দিলেন সম্মানির সাড়ে ৩৫ লাখ টাকা। বরিশাল নগরীতে বেড়েছে জনসমাগম, খুলেছে অনেক দোকান গাদ্দাফিকে ক্ষমতা থেকে উৎখাতকারী সেই জিবরিলের মৃত্যু হলো করোনায় দেশে করোনায় আরও ৪ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২৯ ঢাকার ধামরাই থানা পুলিশের অভিযান ঢাকা আরিচা মহা সড়কে! করোনার লক্ষণ নিয়ে দুদক পরিচালক জালাল সাইফুরের মৃত্যু ধামরাইয়ে মসজিদে মসজিদে বেস্ট ডান ফোরামের জীবাণুনাশক স্প্রে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখা ছয় ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানে জরিমানা
বরিশালে গলা কাটা আতংক।

বরিশালে গলা কাটা আতংক।

শুক্রবার রাত তখন ১২টা। নগরীর ডেফুলিয়া নিবাসী আমেনা বেগম গভীর ঘুমে নিমগ্ন। অত্যন্ত গরমে জানালা খুলেই ঘুমিয়েছে সে। হঠাৎ হাটার শব্দে ঘুম ভেঙ্গে যায় তার। ঘুম ভেঙ্গে জানালার বাইরের রাস্তায় যা দেখলো তাতে সে ভয়ে আঙ্কিত। সে দেখলো এক লোক সাজি বোঝাই করে বাচ্চাদের কাটা মাথা নিয়ে যাচ্ছে। এরপর আমেনা নিজেকে নিয়ন্ত্রণ না করতে পেরে স্বজোরে কল্লা কাটা, কল্লা কাট বলে চিৎকার দেয়। মধ্য রাতে তার চিৎকারের শব্দে চারপাশ থেকে লোকজন লাঠি-শোটা নিয়ে ছুটে আসে কল্লা কাটা ধরতে। পরে সাজি সমেত লোকটাকে ধরে ফেলে। কিন্তু ঘটনা ছিলো ভিন্ন লোকটির মাথার সাজিতে আসলে কোন শিশুর কল্লা ছিলো না। ছিলো বড়শি। সে রাতে মাছ ধরতে বের হয়েছে। অপরদিকে সে আমেনার বাড়ির প্রতিবেশী।
এভাবে বরিশাল জেলা ও অন্যান্য জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে ছেলে ধার (কল্লাকাটা) আতঙ্ক। চায়ের দোকানের আড্ডায়, হাট-বাজার, বিদ্যালয় থেকে শুরু করে বাসা-বাড়িতে কয়েকদিন যাবৎ এই আতঙ্ক বিরাজ করছে।
এভাবেই ছেলে ধরা আতঙ্কে বিদ্যালয়ে সন্তানদের একা ছাড়ছে না বাবা-মায়েরা। আবার সময়ের অভাবে অনেক অভিভাবকরা সাথে যেতে না পারায় সন্তানকেও স্কুলে পাঠাচ্ছে না।
ফলে বিদ্যালয়গুলোতে শিশুশিক্ষার্থীদের সংখ্যাও কমে গেছে। আজ রবিবার বিকাল পর্যন্ত শহর ও গ্রামগঞ্জের পাড়া-মহল্লায় সংবাদ আশে কল্লাকাটা ও ছেলে ধরা নেমেছে। বেশ কয়েকটি স্থান থেকে কল্লাকেটে শিশুদেরকে নিয়ে যাওয়ার ধুর্মজাল সৃষ্টি হয়েছে।
ধারণা করা হয়, সম্প্রতি শিশু অপহরন ও হত্যার বেশ কিছু ঘটনায় শিশু নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা অভিভাবকরা। কতিথ ছেলে ধরা আতঙ্কে ভ’গছে সবাই।
ছেলে ধারা আতঙ্কের কথায় কমপক্ষে পাঁচ জনকে কথিত ছেলে ধরা অপরাধে বরিশালের বিভিন্ন যায়গা থেকে আটক করেছে পুলিশ, এছাড়াও গত বৃহস্পতিবার নগরীর গ্রীর্জামহল্লা এলাকা থেকে ছেলেধরা সন্ধেহে এক মহিলাকে আটক করে কোতয়ালি থানায় সোপর্দ করে জনতা। একইদিনে কাউনিয়ায় শিশু অপহরনের চেষ্টায় অভিযোগ এনে এক যবককে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।
এদিকে চরফ্যাশন উপজেলার আহম্মেদপুর ইউনিয়নের ফরিদাবাদ গ্রামের নুরুল ইসলাম জানান, চরফ্যাশন কলোনির দশ জনের কল্লা কেটে নিয়ে গেছে। তাই তিনি তার সন্তানদেরকে মোবাইল ফোনে নাতি-নাতনিকে সতর্ক রাখার পরামর্শ দেন।
এব্যাপারে বরিশালের পুলিশ সুপার বিষয়টি পুরোপুরি গুজব বলে জানান। অপহরন কিংবা অন্য কোন অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে এমন বিষয় তার জানা নেই বলেও জানান। তবে তিনি একথাও বলেন- আমাদের কাছে এ ধরনের কোন অভিযোগ আসেনি, তবে কোন এলাকায় সন্দেহজনক নতুন লোক দেখলে নিকটস্থ পুলিশকে যেন যানানো হয়।
জেলা প্রসাশক এস,এম অজিয়র রহমান জানান- গুজবে কান না দেয়ার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ রইল এক শ্রেণির ফালতু লোকেরা আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য এ ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে ।

46 total views, 1 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




🏡 আমাদের পরিবারঃ

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ মোঃআরিফুল ইসলাম
  • মোবাইলঃ ০১৭৭৭৮৮৮৮৯৭, ০১৯৫০৯০৬০৬০
  • ঠিকানাঃ
  • ১০ প্যারারা রোড (সাফারিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ৬ তলা), বরিশাল
  • ইমেইলঃ doinikjonotarkhobor@gmail.com

 

➤সতর্কীকরণ: এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© All rights reserved © 2018 doinikjonotarkhobor
Design By Rana